এন্ডোক্রিনোলজি ডায়াবেটিস টাইপ ২

টাইপ-২ ডায়াবেটিসের চিকিৎসা

ডায়াবেটিসের পুরোপুরি নিরাময় না হলেও এর চিকিৎসার লক্ষ হল রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা যতটা

সম্ভব স্বাভাবিকের কাছাকাছি রাখা এবং রোগসংক্রান্ত অন্যান্য উপসর্গগুলোও নিয়ন্ত্রণে রাখা

যাতে এর থেকে পরবর্তীতে অন্য কোন জটিলতা দেখা দিতে না পারে।

যদি আপনার ডায়াবেটিস ধরা পরে, আপনাকে একজন ডায়াবেটিস বিশেষজ্ঞের কাছে পাঠানো হবে।

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক আপনার সাথে আপনার ডায়াবেটিস নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবেন, আপনার

অবস্থা এবং করনীয় আপনাকে বুঝিয়ে বলবেন। তারপর নিয়মিত ভাবে আপনার অবস্থা পর্যবেক্ষণ

করবেন, দেখবেন আপনার ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রনে আছে কিনা বা ডায়াবেটিস থেকে সৃষ্ট কোন জটিলতা

আপনার মধ্যে দেখা দিয়েছে কিনা।

ডায়াবেটিসের চিকিৎসা সেবা কোথায় পাবেন

‘বাংলাদেশ ডায়বেটিস সমতি’ র তত্ত্বাবধানে দেশের উপজেলা পর্যায় পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে এখন

ডায়বেটিস সেবা কেন্দ্র চালু হয়েছে। বারডেম (BIRDEM) ও ‘বাংলাদেশ ডায়বেটিস সমতি’ র অধীনস্থ

একটি প্রতিষ্ঠান। আপনার নিকটস্থ সেবা কেন্দ্রটি খুজে বের করুন, সেখানে যোগাযোগ করুন। অথবা

কোন একজন ডায়বেটিস বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সাথে তার চেম্বারেও দেখা করতে পারেন। তবে

‘বাংলাদেশ ডায়বেটিস সমতি’ র সেবা কেন্দ্র হলে সেখান থেকে আপনি সমন্বিত সেবা পাবেন, কারন

সেখানে সংশ্লিষ্ট অন্যান্য বিশেষজ্ঞরাও থাকেন।

ডায়াবেটিসের জন্য প্রয়োজনীয় পরিসেবা পরিকল্পনা

ডায়াবেটিসের চিকিৎসার মুল লক্ষ হল রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা এবং সময়ের সাথে

যাতে ডায়াবেটিসজনিত অন্য কোন জটিলতা দেখা না দেয় তা নিশ্চিত করা।

ডায়াবেটিস পরিসেবায় সাধারণত নিম্নলিখিত বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্ত থাকে:

● ডায়াবেটিসের চিকিৎসা সংক্রান্ত তথ্য ও সেবা কোথায় পাওয়া যাবে, সেটা যেন ডায়াবেটিস

রোগীরা জানতে পারেন

● ডায়াবেটিস রোগীরা যেন ডায়াবেটিসের উপর “প্রথাগত প্রশিক্ষনে” অংশ নিতে পারে্ন এবং

তাদের চিকিৎসা সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় জ্ঞান সংগ্রহ করতে পারেন, যেমন কিভাবে প্রতিদিনকার

খাবার ও ওষুধের মধ্যে সমন্বয় করতে হয়

● পরিকল্পনা মাফিক তারা যেন একটি দীর্ঘমেয়াদি সেবা পান, যাতে করে তারা সুস্থ স্বাভাবিক

জীবন যাপন করতে পারে্ন

● ডায়াবেটিক রোগীরা যাতে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন এবং ডায়াবেটিস

সংক্রান্ত অন্যান্য জটিলতা এড়িয়ে চলতে পারেন এর জন্য প্রয়োজনীয় সকল তথ্য এবং

সহায়তা সহজে পেতে পারেন

● ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি, ডায়াবেটিক ফুটের মত সম্ভাব্য জটিলতা নির্ণয় এবং চিকিৎসার

ব্যাবস্থা যেন সকল রোগীর জন্য সহজলভ্য থাকে

● রোগী যে কারনেই হাসপাতালে ভর্তি হোক না কেন তার যদি ডায়াবেটিস থাকে তবে সেই

হাসপাতালে যেন তার ডায়াবেটিস চিকিৎসার যথাযথ ব্যবস্থা থাকে

About the author

Maya Expert Team

Leave a Comment