রক্তচাপ হৃদরোগ সংক্রান্ত

উচ্চ রক্তচাপ

Written by Maya Expert Team

“নীরব ঘাতক” হিসেবে পরিচিত, উচ্চ রক্তচাপের খুব কমই সুস্পষ্ট লক্ষণ দেখা যায়।

এই উচ্চ রক্তচাপের যদি চিকিত্সা করা না হয়, তাহলে তা হৃদরোগ বা স্ট্রোকের ঝুঁকি বৃদ্ধি করে। এই সমস্যা যে আছে, তা বোঝার একমাত্র উপায় হচ্ছে নিয়মিত আপনার রক্তচাপ পরিমাপ করা।

সব প্রাপ্তবয়স্ক মানুষেরই উচিত তাদের রক্তচাপ প্রতি পাঁচ বছর অন্তর অন্তর পরিমাপ করে দেখা। যদি আপনি আপনার রক্তচাপ ইদানীং পরিমাপ করে না থাকেন, অথবা স্বাভাবিক অবস্থায় আপনার রক্তচাপ কি তা যদি আপনি না জেনে থাকেন, তাহলে এখনই এই ব্যাপারে আপনি আপনার ডাক্তারের সাথে কথা বলুন, এবং তাকে আপনার রক্তচাপ পরিমাপ করে দেখে দিতে বলুন।

উচ্চ রক্তচাপ কি?

রক্তের চাপ পারদ (mmHg) এর মিলিমিটারে মাপা হয় এবং এর পরিমাপ দুইটি পরিসংখ্যান হিসাবে নথিভুক্ত করা হয়:

  • সিস্টোলিক চাপ – যখন আপনার হৃৎপিণ্ড রক্ত পাম্প করে সারা শরীরে পাঠায়, এটি হচ্ছে তখনকার রক্তের চাপ।
  • ডায়াসটোলিক চাপ – দুই হৃদ স্পন্দনের মাঝখানে যখন আপনার হৃৎপিণ্ড বিশ্রাম নেয়, এটি হচ্ছে তখনকার রক্তের চাপ। এটি একটি আন্দাজ দেয় যে কত জোরালোভাবে আপনার ধমনীতে রক্ত প্রবাহের প্রতিফলন রোধ হচ্ছে।

যেমন ধরুন, আপনার ডাক্তার যদি বলেন যে আপনার রক্ত চাপ “১৪০ বাই ৯০”, অথবা ১৪০/৯০ mmHg , তাহলে আপনাকে বুঝতে হবে যে আপনার সিস্টোলিক চাপ হচ্ছে ১৪০ mmHg এবং ডায়াসটোলিক চাপ হচ্ছে ৯০ mmHg।

বিভিন্ন পৃথক সময়ে রক্তচাপ মাপার পর যদি বারে বারে ধারাবাহিকভাবে আপনার রক্তচাপ ১৪০/৯০ বা এর বেশী হয়, তাহলে বলা হয় যে আপনার উচ্চ রক্তচাপ আছে।

১৩০/৮০ mmHg – এর নিচে রক্তচাপ স্বাভাবিক বলে মনে করা হয়

কাদের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশী ?

আপনার বয়স বাড়ার সাথে সাথে উচ্চ রক্তচাপ হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে। উচ্চ রক্তচাপ হওয়ার কোনো সুস্পষ্ট কারণ প্রায়ই পাওয়া যায় না, কিন্তু আপনার ঝুঁকি বেশী থাকে যদি –

  • আপনার ওজন অনেক বেশী হয়
  • আপনার আত্মীয়স্বজনের উচ্চ রক্তচাপ আছে
  • আপনি ধূমপান করেন
  • আপনি আফ্রিকান বা ক্যারিবিয়ান বংশদ্ভুত
  • অতিরিক্ত লবণ খান
  • যথেষ্ট ফল এবং সবজি খান না
  • যথেষ্ট ব্যায়াম করেন না
  • খুব বেশী কফি (অথবা অন্যান্য ক্যাফিন জাতীয় পানীয়) পান করেন
  • খুব বেশী মদ্য পান করেন
  • ৬৫ বছরের বেশী বয়সী হন

আপনি যদি উপরে কোন তালিকায় পরেন, তাহলে উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি কমানোর জন্য আপনার জীবনধারা পরিবর্তনের কথা বিবেচনা করতে হবে । এর উপর আপনাকে নিয়মিত রক্ত চাপ পরিমাপ করার চিন্তা ভাবনা করতে হবে, বছরে নিম্নতম একবার।

Symptoms

উচ্চ রক্তচাপের সাধারণত কোন সুস্পষ্ট লক্ষণ থাকে না এবং অনেক মানুষই জানেনা যে এটা তাদের আছে।

এই উচ্চ রক্তচাপের যদি চিকিত্সা করা না হয়, তাহলে স্ট্রোক, হৃদরোগ ও কিডনি সমস্যা সহ অনেক গুরুতর রোগ হতে পারে। আপনার উচ্চ রক্তচাপ আছে কি না তা জানার একমাত্র উপায় হল নিয়মিত রক্তচাপ পরিমাপ করা। সব প্রাপ্তবয়স্ক মানুষেরই উচিত তাদের রক্তচাপ নিম্নতম প্রতি পাঁচ বছর অন্তর অন্তর পরিমাপ করে দেখা।

একজন ব্যক্তির যদি অনেক বেশী উচ্চ রক্তচাপ থাকে তাহলে কোন কোন ক্ষেত্রে, তারা কিছু উপসর্গ অনুভব করতে পারেন , যেমন –

  • ক্রমাগত মাথা ব্যাথা
  • ঝাপসা দেখা বা একটি জিনিস দুইটি দেখা
  • নাক দিয়ে রক্ত পরা
  • শ্বাসকষ্ট

আপনি যদি লক্ষ্য করেন যে আপনার এই সব উপসর্গের কোনটি আছে, তাহলে দেরী না করে শীঘ্র আপনার ডাক্তারের সাথে দেখা করুন।

গর্ভাবস্থা

আপনি যদি গর্ভবতী হন, তাহলে আপনার উচ্চ রক্তচাপ না থাকলেও নিয়মিত রক্তচাপ পরিমাপ করে দেখা অনেক গুরুত্বপূর্ণ ।

আপনি যদি গর্ভকালীন সময়ে আপনার রক্তচাপ নিয়মিত পরিমাপ করেন এবং তা পর্যবেক্ষণ করেন, তাহলে আপনার গর্ভকালিন-সময়ে-উচ্চ রক্তচাপ হওয়ার ঝুঁকি অনেক অংশেই কমে যায়।

গর্ভকালীন সময়ে আপনার উচ্চ রক্ত চাপ হয়, এটি একটি গুরুতর অবস্থায় পরিণত হতে পারে। আপনার প্রি-এক্লাম্পসিয়া হতে পারে। এটি একটি সমস্যা যেখানে আপনার এবং আপনার গর্ভের সন্তানের মাঝে সংযোগকারী অঙ্গ – গর্ভফুলে – সমস্যা দেখা দেয়।

প্রসবপূর্বক চেক-আপ এবং পরীক্ষানিরীক্ষা সম্পর্কে আরও বিস্তারিত পড়ুন।

About the author

Maya Expert Team

Leave a Comment