কৈশোর স্বাস্থ্য বয়ঃসন্ধিকাল

বয়ঃসন্ধির কারন

Written by Maya Expert Team

শরীরের নির্দিষ্ট কিছু হরমোন এবং জিনের কারনে বয়ঃসন্ধি শুরু হয়। কারো কারো বয়ঃসন্ধি আগে এবং কারো কারো বয়ঃসন্ধি দেরিতে শুরু হওয়ার কারণগুলো নিশ্চিত হওয়া না গেলেও, কয়েকটি বিষয়কে এর জন্য দায়ী মনে করা হয়।

জিন (Genes)

গবেষণায় দেখা গেছে যে বয়ঃসন্ধি শুরু হয় KiSS1 নামক একটি জিনের কারনে। GPR54 নামের আরেকটি জিন যেটি কিসপেপটিনস (kisspeptins) নামক রাসায়নিক পদার্থের প্রভাবে সচল হওয়ার আগ পর্যন্ত বহু বছর ধরে শরীরে নিস্ক্রিয় অবস্থায় থাকে। কিসপেপটিনস উৎপাদন করে KiSS1 জিনটি। GPR54 জিনটি মস্তিষ্কে সঙ্কেত পাঠালে একটি চেইন রিঅ্যাকশন শুরু হয় যার কারনে বয়ঃসন্ধির প্রক্রিয়াটি শুরু হয়।

মস্তিষ্কের হাইপোথ্যালামাস নামক অংশটি পিটুইটারি গ্রন্থিতে (এটি মস্তিষ্কের গোড়ার দিকে অবস্থিত ছোট একটি গ্রন্থি) কিছু সঙ্কেত পাঠালে সেটি কিছু হরমোনের নিঃসরণ ঘটায় যা মেয়েদের ডিম্বাশয় এবং ছেলেদের অণ্ডকোষকে যৌন হরমোন (sex hormones) তৈরিতে সাহায্য করে।

এই চেইন রিঅ্যাকশন এবং হরমোনের নিঃসরণের কারনে বয়ঃসন্ধিকালীন পরিবর্তনগুলো ঘটে।

হরমোন

ডিম্বাশয় এবং অণ্ডকোষ দুটি যৌন হরমোন উৎপাদন করে যার কারনে বয়ঃসন্ধিকালীন পরিবর্তনগুলো ঘটে। যৌন হরমোন দুটি হচ্ছেঃ

  • অণ্ডকোষের তৈরি করা টেসটোস্টেরনঃ ছেলেদের শরীরে এর প্রভাবে পুরুষাঙ্গ এবং অণ্ডকোষের বৃদ্ধি তরান্বিত হয় এবং মাংসপেশি ও যৌনাঙ্গের চারপাশে চুল বৃদ্ধি পায়। এর কারনে গলার স্বরেরও পরিবর্তন ঘটে।
  • মেয়ে এবং মহিলাদের দেহেও ডিম্বাশয় থেকে অল্প পরিমাণে উৎপন্ন কিছু টেসটোস্টেরন থাকে, যা তাদের মাংসপেশি ও হাড়ের সুস্থতা বজায় রাখতে সাহায্য করে।
  • ডিম্বাশয় থেকে উৎপন্ন এস্ট্রোজেনঃ এটির প্রভাবে মেয়েদের স্তন এবং স্ত্রী প্রজনন তন্ত্র গঠিত হয় এবং তাদের মাসিক চক্রটি এর দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়।
  • বালক ও পুরুষদের দেহেও কিছু পরিমাণে এস্ট্রোজেন থাকে, যা তাদের মস্তিস্ক এবং অণ্ডকোষে তৈরি হয়। এটি তাদের হাড়ের ঘনত্ব বজায় রাখতে সাহায্য করে।

বয়ঃসন্ধির সূচনা সঙ্কেত (Triggers of puberty)

পরিবেশগত এবং জেনেটিক কিছু নিয়ামকের প্রভাবে বয়ঃসন্ধির সূচনা হয় বলে মনে করা হয়। গবেষণায় দেখা গেছে কৃষ্ণাঙ্গ মেয়েদের বয়ঃসন্ধি শ্বেতাঙ্গ মেয়েদের আগে শুরু হয়। তবে শ্বেতাঙ্গ ছেলেদের চাইতে কৃষ্ণাঙ্গ ছেলেদের দ্রুততর গতিতে বেড়ে ওঠার কোন প্রমান পাওয়া যায়নি। মেয়েদের ক্ষেত্রে খাদ্যাভ্যাস এবং পুষ্টির বিষয়টিকেও বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ মনে করা হয়। গবেষণায় দেখা গেছে যে যেসব মেয়েদের ওজন স্বাভাবিকের চাইতে বেশি তাদের বয়ঃসন্ধি কম ওজনের মেয়েদের চাইতে তুলনামূলক ভাবে তাড়াতাড়ি শুরু হয়।

সম্প্রতি মেয়েদের ওজন স্বাভাবিকের চাইতে বেশি হওয়ার যে প্রবণতা লক্ষ করা যাচ্ছে, সেটির সাথে মেয়েদের বয়ঃসন্ধি শুরুর গড় বয়স কমে যাওয়ার সম্পর্ক থাকতে পারে। তবে ওজন বেশি হওয়ার এই প্রভাব ছেলেদের উপর পড়ে না কেন তার কারন জানা যায় না।

কেন নির্দিষ্ট কিছু বিষয় বয়ঃসন্ধির উপর প্রভাব ফেলে তা সম্পর্কে খুব বেশি কিছু নিশ্চিতভাবে জানা যায় না। এই বিষয়ে গবেষণা চলছে। তাড়াতাড়ি বা দেরিতে বয়ঃসন্ধি শুরু হওয়ার বিষয়ে বিভিন্ন তথ্য জেনে নিন।

About the author

Maya Expert Team

Leave a Comment