মাসিকে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ

মেনোরেজিয়া বা অতিরিক্ত  মাসিক হল  যখন কোন মহিলার মাসিকের সময় নির্দিষ্ট সময় জুরে অতিরিক্ত  রক্ত ক্ষরন হয়।

মেনোরেজিয়া কখনো একা বা কখনো  অন্য উপসর্গ এর সাথে দেখা যায়। যেমন মাসিকের সময় ব্যাথা বা ডিসমেনরিয়া।

অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরন থাকলেই  যে বড় কিছু হবে এমন টা  নয় কিন্তু এটা একটা  মহিলার শারীরিক মানসিক সামাজিক জীবনের উপর প্রভাব ফেলতে পারে,যা  দৈনন্দিন জীবন কে ব্যহত করে।

যদি মাসিকের সময় বা দুই মাসিকের মাঝে আপনার প্রচুর রক্ত ক্ষরন হয় তবে অবশ্যই ডাক্তার দেখান।

 

কতখানি রক্ত গেলে তাকে ” অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরন” বলবেন?

 

অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরন কি তা ব্যাখ্যা করা খুব কঠিন কেননা রক্তের পরিমান মহিলা ভেদে পরিবর্তিত ।

মটামুটি, এক মাসিকে মহিলাদের স্বভাবিক ভাবে ৩০-৪০ মিলি রক্ত যায়,এবং  ১০ জনের ৭ জনে ৮০ মিলি থেকে কম যায়।

তাই বলা যায়, ৬০ থেকে ৮০ মিলি অথবা এর বেশি রক্ত গেলে তাকে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ বলে।

নেহাত-ই মাসিকের রক্ত মাপার প্রয়োজন পরে কারন প্রত্তেক মহিলার এ সাভাবিক মাসিকের রক্ত সম্পরকে ধারনা থাকে এবং তারা তার কম বা বেশি হলে বলতে পারে।

অতিরিক্ত  মাসিক এর পরিমাপক গুল হল:

১) আপনার মনে হচ্ছে আপনি অনেক  বেশি প্যাড ব্যবহার করছেন।

২) রক্ত উছলিয়ে আপনার  কাপড় বা বিছানা মেখে যাচ্ছে ।

৩) আপনাকে প্যাড এবং তুলা দুই-ই ব্যবহার করতে হচ্ছে।

 

কেন অতিরিক্ত  মাসিক হয়?

 

অধিকাংশ ক্ষেত্রে অতিরিক্ত  মাসিক এর কন কারন থাকে না তবু কিছু রোগ বা ঔষধ এমনটা করতে পারে যেমন –

১) জরায়ুর মাংসে টিউমার

২)ডিম্বাশয়ে সিস্ট

৩) রক্ত পাতলা করার ঔষধ বা রক্ত জমাট বাধতে দেয় না এমন ঔষধ।

 

রোগ নির্ণয়ঃ 

শুধু উপসর্গ গুল থেকেই আপনার ডাক্তার এটা  বলতে পারেন যে আপনার অতিরিক্ত  মাসিক আছে কিনা।

আপনার অতিরিক্ত  মাসিক এর কারন বের করতে কিছু পরিক্ষা করতে হতে পারে। যেমন- পেলভিক  পরীক্ষা এবং রক্ত পরীক্ষা।

যদি তবুও কারন না পাওয়া যায় তবে আলট্রাসাউন্ড করাতে পারেন। 

 

অতিরিক্ত  মাসিক এর চিকিৎসা :

কিছু ক্ষেত্রে এর চিকিৎসার প্রয়োজন পরে না, জীবনের উপর তা প্রভাব ফেলে না।

যদি চিকিৎসা দরকার হয় তবে ঔষধ এ সবচেয়ে আগে ব্যবহার করা হয়।তবে কোন ঔষধ আপনাকে দেয়া হবে তার জন্য কিছু সময় লাগতে পারে কেননা বিভিন্ন ঔষধ এর কার্যক্ষমতা বিভিন্ন।কিছু ঔষধ আবার জন্ম নিয়ন্ত্রণ এর ও কাজ করে।

যদি ঔষধ  ব্যর্থ হয় তবে অপারেশন লাগতে পারে।

0 comments

Leave a Reply