কেন আপনার বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়াবেন?

আপনার বাচ্চাকে কিভাবে খাওয়াবেন সে বিষয়টি আগে থেকেই ভেবে রাখা উচিত। বর্তমানে অধিকাংশ নারী বুকের দুধ খাওয়ানোকেই বেছে নেন।

আপনার বাচ্চার জন্য বুকের দুধই একমাত্র প্রাকৃতিক খাবার।

বুকের দুধ আপনার বাচ্চাকে বিভিন্ন ইনফেকশন ও রোগবালাই থেকে রক্ষা করে।

বুকের দুধ শিশুর স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।

শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানো মায়ের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।

এটি বিনামুল্যে পাওয়া যায়।

যখন এবং যেখানে শিশুর খাওয়ার প্রয়োজন এটি পাওয়া যায়।

এটি সঠিক তাপমাত্রায় থাকে।

এটি মা ও সন্তানের মাঝে একটি মজবুত স্বাস্থ্যগত ও আবেগিক বন্ধন তৈরী করে।

এটি আপনাকে একটি চমৎকার অর্জনমূলক অনুভুতি প্রদান করে।

 

সাধারন কিছু ভুল ধারণা

বুকের দুধ খাওয়ানো নিয়ে বহু মিথ বা অতিকথন এবং গল্প আমাদের পরিবার পরিজনদের মাঝে বিদ্যমান, কিন্তু এগুলোর মাঝে কিছু ভুল অথবা সেকেলে ধারণা রয়েছে। দেখুন আপনি কত ভুল তথ্য শুনেছেন এবং প্রকৃত সত্য থেকে দূরে থেকেছেনঃ

মিথ ১: “বুকের দুধ খাওয়ানোর ফলে স্তন অসমভাবে ঝুলে যায়’’

প্রকৃত সত্য: বুকের দুধ খাওয়ানোর ফলে স্তন ঝুলে যায়না, তবে বয়স হয়ে যাওয়া এবং ওজন হ্রাস পাওয়া এক্ষেত্রে প্রভাব ফেলে।

মিথ ২: “বুকের দুধ এবং ইনফ্যান্ট ফর্মুলা মূলত একই’’

প্রকৃত সত্য: ইনফ্যান্ট ফর্মুলা কখনোই বুকের দুধের সমতুল্য নয়। এটিতে কোন প্রাকৃতিক উপাদান নেই, সুতরাং অ্যান্টিবডি, জীবন্ত কোষ, এনজাইম অথবা হরমোন বিদ্যমান থাকেনা; যেগুলো আপনার শিশুকে পরবর্তী জীবনে বিভিন্ন ইনফেকশন ও রোগ থেকে সুরক্ষা করতে পারে।

মিথ ৩: “নারীদের প্রকাশ্যে বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানোকে লোকজন অপছন্দ করে’’

প্রকৃত সত্য: জরিপের মাধ্যমে দেখা যায়, অধিকাংশ জনগন প্রকাশ্যে বুকের খাওয়ানোকে মোটেও অপছন্দ করেন না। এটি বেশি বেশি ঘটতে থাকলে তা স্বাভাবিক ঘটনায় পরিণত হবে।

মিথ ৪: “কিছু নারীর ক্ষেত্রে বুকের দুধ খাওয়ানো সহজ, কিন্তু কারো কারো পর্যাপ্ত দুধ উৎপন্ন হয়না‘’

প্রকৃত সত্য: শারীরিকভাবে প্রায় সকল নারীই বুকের দুধ খাওয়ানোর ক্ষেত্রে সক্ষম। এটি বিশেষ এক ধরনের দক্ষতা যা শেখা এবং অভ্যাস গ্রহণের মাধ্যমে নারীদের জন্য সহজ হয়। কারো ক্ষেত্রে অন্যদের তুলনায় খুব সহজে এটি করা সম্ভব, তবে প্রায় সকল নারীই তাদের সন্তানের প্রয়োজন অনুযায়ী বুকের দুধ সরবরাহ করতে সক্ষম।

মিথ ৫: “বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ালে যৌনমিলন করা যাবেনা’’

প্রকৃত সত্য: সন্তান জন্মের পর কখন যৌনমিলন করবেন এ বিষয়ে আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। শিশুর জন্য বুকের দুধ নির্গত হওয়ার ক্ষেত্রে যে হরমোন(oxytocin) সাহায্য করে একই হরমোন যৌনমিলনের সময় তৈরী হয়। যৌনমিলনের সময় সামান্য পরিমান দুধ নির্গত হতে পারে। তবে  এটি একটি স্বাভাবিক ঘটনা।

 

বোতলের পরিবর্তে বুকের দুধ খাওয়ানো

যদি আপনি ইতিমধ্যে কিছুদিন যাবৎ বাচ্চাকে সম্পুরক খাবার (ফর্মুলা) খাওয়ান, কিন্তু আপনার চিন্তায় পরিবর্তন হওয়ার ফলে যদি বুকের দুধ খাওয়াতে চান; তাহলে কিভাবে বুকের দুধের সরবরাহ বৃদ্ধি করা যায় সে বিষয়ে যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসক অথবা স্বাস্থ্য পরিদর্শকের সাথে কথা বলুন।

 

বুকের দুধ না খাওয়ানোর কিছু স্বাস্থ্যগত কারন

মাঝে মাঝে বুকের দুধ না খাওয়ানোর কিছু স্বাস্থ্যগত কারন দেখা যায়। যেমন আপনি যদি HIV তে আক্রান্ত হন অথবা এমন ধরনের ঔষধ গ্রহণ করেন যা শিশুর স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর তাহলে বুকের দুধ খাওয়ানো উচিত নয়। এই রকম অবস্থায় যখন কোন উপায় থাকেনা, চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ইনফ্যান্ট ফর্মুলার দ্বারা বোতলে খাওয়াতে পারেন। যদি আপনি বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়ানোর বিষয়ে নিশ্চিত না হতে পারেন, তাহলে তথ্য ও সাহায্যের জন্য চিকিৎসক অথবা স্বাস্থ্য পরিদর্শকের সাথে কথা বলুন। এছাড়াও সাহায্যের জন্য আপনি আমাদের শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানো  বিষয়ক সাহায্য এবং তথ্য বিভাগে অনুসন্ধান করুন।

 

সম্পূরক খাবার(formula) খাওয়ানো

আপনি যদি সম্পুরক খাবার বা ফর্মুলা মিল্ক খাওয়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন তাহলে আমাদের এ বিষয়ক বিভাগে দেখুন কিভাবে ব্যবহারিক ও গুরুত্বপুর্ণ তথ্যের দ্বারা ফর্মুলা ফিডিং এর ঝুঁকি হ্রাস করা যায়।

 

Image Courtesy: Google Images

0 comments

Leave a Reply